টেক প্রোডাক্ট
Now Reading
স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি ‘এ’ সিরিজের নতুন মডেল

স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি ‘এ’ সিরিজের নতুন মডেল

ডিভাইস বিক্রির দিক থেকে এগিয়ে থাকলেও মুনাফা অর্জনের ক্ষেত্রে অ্যাপলের চেয়ে পিছিয়ে পড়েছে স্যামসাং। প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বাজারে অবস্থান দৃঢ় করতে নিয়মিত নতুন ডিভাইস আনছে দক্ষিণ কোরিয়ান প্রতিষ্ঠানটি। প্রতিষ্ঠানটির মোবাইল ব্যবসা বিভাগে নতুন মাত্রা যোগ করতে সম্প্রতি চীনের বাজারে ছাড়া হয় গ্যালাক্সি সিরিজের নতুন দুই স্মার্টফোন।
চীনের বাজারে সাড়া জাগানোয় দ্বিতীয় প্রজন্মের এ ডিভাইস দুটি এবার বিকাশমান স্মার্টফোনের বাজারে আসছে। গ্যালাক্সি এ৫ (২০১৬) এবং গ্যালাক্সি এ৭ (২০১৬) মডেলের এই ফোন দুটি বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে ভারতের বাজারে।
প্রযুক্তিপণ্যের গুরুত্বপূর্ণ এক বাজার ভারত। প্রাথমিকভাবে এ বাজারে নতুন ডিভাইস দুটি বিপণন শুরু করেছে স্যামসাং। এর মধ্যে গ্যালাক্সি এ৫ (২০১৬) মডেলের ফোনটি ২৯ হাজার ৪০০ রুপি এবং গ্যালাক্সি এ৭ (২০১৬) মডেলের ফোনটি ৩৩ হাজার ৪০০ রুপিতে বিক্রি করা হচ্ছে।
এনডিটিভির এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, অ্যান্ড্রয়েড ৫.১ ললিপপ অপারেটিং সিস্টেমভিত্তিক এ দুই ডিভাইসেই ডুয়াল সিম ব্যবহারের সুবিধা আছে।
গ্যালাক্সি এ৭ ডিভাইসে ১০৮০–১৯২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ৩ গিগাবাইট র‍্যামের এ ডিভাইসে রয়েছে ১ দশমিক ৬ গিগাহার্টজের প্রসেসর। এতে ১৬ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ তথ্য সংরক্ষণের সুবিধা আছে, যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে ১২৮ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব। এছাড়া ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরার এ স্মার্টফোনে ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরার পাশাপাশি রয়েছে ৩৩০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি।
গ্যালাক্সি এ৫ কনফিগারেশনের দিক থেকে এ৭-এর সঙ্গে অনেকটাই সাদৃশ্যপূর্ণ। তবে এ ডিভাইসে ৫ দশমিক ২ ইঞ্চি ফুল এইচডি সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ২ গিগাবাইট র‍্যামের এ ডিভাইসেও ১৬ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ তথ্য সংরক্ষণের ব্যবস্থা রয়েছে। ১৫৫ গ্রাম ওজনের গ্যালাক্সি এ৫-এ ২৯০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে।

নিচের বাটনগুলোর সাহায্যে খবরটি শেয়ার করুন