জাপানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (জাক্সা) টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রকাশিত ছবি
in

দ্রুত ধাবমান গ্রহাণুতে রোবটের অবতরণ!

মহাকাশে দ্রুত ধাবমান একটি গ্রহাণুতে প্রথমবারের মতো রোবট অবতরণ করাতে সক্ষম হয়েছে জাপান। ইতোমধ্যেই জাপানের পাঠানো রোবটগুলো গ্রহাণু থেকে ছবি পাঠানো শুরু করেছে বলে জানিয়েছে করেছে দেশটির মহাকাশ সংস্থা জাক্সা।

গোলাকার দুটি রোভার হায়াবুশা-২ নামের মহাকাশযানের মাধ্যমে উৎক্ষেপণ করা হয় এবং সেগুলো রাইগু নামে গ্রহাণুতে সফলভাবে অবতরণ করে।

মহাকাশে প্রচুর গ্রহাণু রয়েছে। এসব গ্রহাণুর কোনো কোনোটি পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে আঘাত হেনে আকাশেই পুড়ে যায়। তবে পোড়ার আগে এসব গ্রহাণুকে যদি পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব হয় তাহলে মহাবিশ্বের সৃষ্টিরহস্যসহ আরো বহু বিষয় জানা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

প্রায় এক কিলোমিটারের রাইগু নামে গ্রহাণুটি পৃথিবীর কাছ দিয়েই উড়ে যাবে, এটা আগেই জানা গিয়েছিল। সেখানে রোবটিক মহাকাশযান পাঠানো হয়। এটি ২১ সেপ্টেম্বর গ্রহাণুটিতে নামে এবং সেখান থেকে ছবি ও নমুনা সংগ্রহ শুরু করেছে। কাজ শেষে এটি পৃথিবীতে ফেরত আসবে।

এরপর আরো একটি মিশন পরিচালনা করা হবে রাইগু নামে গ্রহাণুটিতে। সেগুলো রাইগুতে ড্রিল করে নমুনা সংগ্রহ করবে এবং তার ভেতরে কী আছে জানার চেষ্টা করবে।

উভয় রোভারই ভালো অবস্থায় আছে এবং শনিবারই তাদের সফল অবতরণ নিশ্চিত হওয়া গেছে বলে জাক্সা জানায়। এগুলো প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে প্রেরণ করা হয়েছে এবং গত জুনে গ্রহাণুতে পৌঁছায়।

এর আগে ২০০৫ সালে দেশটি আরো একবার গ্রহাণুতে রোবট পাঠানোর চেষ্টা করেছিল। কিন্তু সেবার মিশন ব্যর্থ হলেও এবার মিশন সফল হয়েছে বলে জানিয়েছে জাক্সা।

Comments

Leave a Reply

Leave a Reply

Loading…

0

Comments

0 comments